September 24, 2022, 3:19 pm

দুর্গাপুরে যুবককে ধরে নিয়ে গেল বিএসএফ

নেত্রকোণার দুর্গাপুর উপজেলার বারমারী সীমান্তে ভারতের অভ্যন্তরে মো.শাহান মিয়া(৩৬)নামের এক বাংলাদেশীকে ধরে নিয়ে গেছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষা বাহিনী (বিএসএফ)। গত সোমবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে বিএসএফ ক্যাম্পের সদস্যরা ১১৬৩ নং সীমান্ত পিলারে ভারতের অভ্যন্তরে তাকে ধরে নিয়ে যায়। শাহান মিয়া উপজেলার দুর্গাপুর সদর ইউনিয়নের মেনকীফান্দা গ্রামের মো. ফয়েজ উদ্দিনের ছেলে। বুধবার(৩১ আগস্ট) দুপুরে খবর পেয়ে ভুক্তভোগীর বাড়িতে গেলে নিখোঁজের স্ত্রী রেখা আক্তার স্বামীকে বিএসএফ ধরে নেয়ার ঘটনাটি সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেণ।

নিখোঁজের স্বজনরা জানান, (২৯ আগস্ট) সোমবার দুপুর দেড়টার দিকে মেনকীফান্দা গ্রামের কালাম নামের একজনের চুরাই কাঠ কাটতে ভারতে যান। সেখানে সন্ধ্যার দিকে ৫সদস্যের আরেকটি চুরাই টিম ভারতীয় কসমেটিক্স আনতে অনুপ্রবেশ করে। তাঁদের প্রলোভনে পড়ে মো.শাহান মিয়া ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বিএসএফ এর হাতে আটক হন। ঘটনার পরদিন ভোর বেলায় ওই ৫জন পালিয়ে চলে আসে। কিন্তু আটকা পড়ে যান শাহান মিয়া। এ বিষয়টি স্থানীয় বিজিবি সদস্যদের জানানো হলে আজ বুধবার দুপুরে এক দুই দেশের সীমান্তরক্ষীদের পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে আটকের বিষয়টির নিশ্চিত হয়েছেন পরিবারের লোকজন বলেও জানা গেছে।

নেত্রকোণা ব্যাটালিয়ন (৩১ বিজিবি) বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ বারমারী বিওপি’র সুবেদার মো.লিয়াকত আলী বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, চোরাকারবারি দলের সাথে ভারতে যায়,সেখান থেকে ফেরার পথে বিএসএফ সদস্যরা তাকে আটক করে। বর্তমানে তিনি ভারতের রংরা থানা হেফোজতে রয়েছেন। তবে তিনি সুস্থ্য রয়েছেন। আইনি কিছু প্রক্রিয়া শেষে আগামী ৩-৫ দিনের মধ্যে পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে আমাদের হাতে হস্তান্তর করার কথা রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, বিএসএফের আইনি প্রক্রিয়া চলমান আছে। তাকে ফিরিয়ে নিয়ে আনার জন্য উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের দিক নির্দেশনায় আমাদের যা করণীয় সেটাও চলমান রয়েছে।

কলিহাসান,দুর্গাপুর (নেত্রকোণা)

নিউজটি শেয়ার করুন


© All rights reserved © seradesh.com
Design, Developed & Hosted BY ALL IT BD