September 25, 2022, 12:47 am

বগুড়ায় ছাত্রলীগকে কোপালো বিএনপি, উত্তেজনা-সংঘর্ষ

বগুড়ার নন্দীগ্রামে উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদকের বাসভবন এলাকায় এক ছাত্রলীগ নেতাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপানো হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বুধবার (৩১ আগস্ট) দুপুরে নন্দীগ্রাম পৌর সদরের মাজগ্রাম এলাকায় ছাত্রলীগ নেতা আবু রায়হানের (২২) ওপর হামলার ঘটনা ঘটে। তিনি উপজেলার বুড়ইল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক।

জানা গেছে, কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে বুধবার বিকাল ৩টায় নন্দীগ্রাম সদরের মুনসুর হোসেন ডিগ্রী কলেজ মাঠে সমাবেশ আহবান করে উপজেলা বিএনপি। অন্যদিকে ১০০ গজ দুরেই বাসস্ট্যান্ড এলাকায় বঙ্গবন্ধু চত্বরে একই সময়ে উপজেলা ও পৌর শ্রমিকলীগ শোকাবহ আগস্ট উপলক্ষে শোকসভার আয়োজন করে। কর্মসূচি ঘিরে বুধবার সকাল থেকেই দুই পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছিল। দুপুরের দিকে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা সমাবেশস্থলে অবস্থান নেয়। পরে তারা কলেজ মাঠ ও বঙ্গবন্ধু চত্বরে অবস্থান নেয়।

জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে বাসস্ট্যান্ড এলাকায় বঙ্গবন্ধু চত্বরে জাতীয় শ্রমিকলীগ আয়োজিত শোকসভায় যোগদিতে একটি মিছিল মাজগ্রাম দিয়ে আসার সময় পিছন থেকে বিএনপির নেতাকর্মীরা হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগ ছাত্রলীগের।

খবর পেয়ে আওয়ামী লীগ, শ্রমিকলীগ, ছাত্রলীগসহ অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে বিএনপির নেতাকর্মীদের ধাওয়া দিলে সংঘর্ষ শুরু হয়। এতে বিএনপির দুই নেতা আহত হয়েছেন বলে খবর পাওয়া গেছে। সংঘর্ষের সময় বেশ কয়েকটি মটরসাইকেল ভাংচুরের ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করে দুই পক্ষের উত্তেজনা নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করছে স্থানীয় প্রশাসন। পরিস্থিতি বর্তমানে শান্ত থাকলেও ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা ক্ষোভে ফুঁসছে।

মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে উপজেলা বিএনপির সভাপতি আলাউদ্দিন সরকার কল রিসিভ করেননি। উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক বেলায়েত হোসেন আদরের নম্বরটি বন্ধ থাকায় মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

এদিকে ছাত্রলীগ নেতা আবু রায়হানের ওপর হামলার প্রতিবাদে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি তুহিন আহমেদের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক শুভ আহমেদের সঞ্চালনায় প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

ছাত্রলীগের দাবি, পূর্বঘোষিত জাতীয় শ্রমিকলীগের শোকসভায় আসার পথে ছাত্রলীগের এক নেতাকে কুপিয়ে জখম করেছে বিএনপি নেতারা। আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে দোষী ব্যক্তিদের গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছে ছাত্রলীগ।

নন্দীগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, দুই দলের কর্মসূচির কারনে সকাল থেকেই পুলিশ সতর্ক অবস্থানে রয়েছে। দুপুরের পর উত্তেজনা বাড়ায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রনে রয়েছে।

 

নন্দীগ্রাম বগুড়া প্রতিনিধি

নিউজটি শেয়ার করুন


© All rights reserved © seradesh.com
Design, Developed & Hosted BY ALL IT BD