September 25, 2022, 2:21 am

১০ম গ্রেড বাস্তবায়নের দাবীতে শিক্ষকদের অবস্থান কর্মসুচি ও স্বারকলিপি প্রদান

দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে ন্যায্যতা ও যোগ্যতার ভিত্তিতে ১০ম গ্রেড বাস্তবায়নের দাবীতে অবস্থান কর্মসুচি এবং স্বারকলিপি প্রদান করেছেন উপজেলার প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষকরা।

 

বুধবার সকাল ১১টায় উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস চত্বরে তারা ঘন্টাব্যাপী এই অবস্থান কর্মসুচি পালন করেন।
পরে তারা সহকারী শিক্ষকদের ১০ম গ্রেডে বেতন-ভাতা প্রদানে যৌক্তিকতার আলোকে প্রস্তাবনা প্রণয়নের দাবীতে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা হাছিনা ভুইয়ার মাধ্যমে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রনায়লয়ের সিনিয়র সচিব বরাবর সহকারী শিক্ষকদের স্বাক্ষরিত একটি স্বারকলিপি প্রদান করেন।

অবস্থান কর্মসুচিতে বক্তব্য রাখেন, সহকারী শিক্ষক আব্দুল আলিম,সৈয়দ আপেল মাহমুদ দিপু,আবু তালেব,দিপঙ্কর বর্মন,আনিছুর রহমান,আশরাফু ইসলাম চৌধুরী,ফজলে রাব্বী,তমিজুল ইসলাম রকেট,মিলন সরকার ও মোয়াজ্জেম হোসেন প্রমুখ।

এসময় বক্তারা বলেন,প্রাথমিক সহকারী শিক্ষকদের শিক্ষাগত যোগ্যতা স্নাতক ( ২ য় বিভাগ ) সমমান হলেও ১০ ম গ্রেড পেতে শুধুমার আম্লাতান্ত্রিক প্রতিবন্ধকতা। পড়াশোনা শেষ করে মহৎ পেশা শিক্ষকতায় নতুন নিয়োগ পাওয়া একজন শিক্ষক যে পরিমান বেতন পায়। মাসিক এ বেতনে সংকুশান না হয়ে অনেক ক্ষেত্রে ঋণের বোঝা মাথায় নিয়ে হতাশা ও মনোকষ্ট নিয়ে জীবন অতিবাহিত করতে হয়। মাসিক এই বেতন ভাতা দিয়ে জীবনযাপন করা সম্ভবপর নয়। এ কারনে মেধাবীরা প্রাথমিকে শিক্ষকতা পেশায় না এসে অন্য পেশায় ছুটেছেন। প্রাথমিকে শিক্ষকতা পেশায় মেধাবীদের আকৃষ্ট করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে আশু হস্তক্ষেপ প্রয়োজন।

তারা বলেন, ১৯৭৭ সালে সামরিক শাসনামলে প্রধান শিক্ষকদের বেতন স্কেল ৩২৫টাকা ও সহকারী শিক্ষকদের বেতন স্কেল ৩শ টাকা নির্ধারন করে সর্বপ্রথম প্রধান শিক্ষক ও সহকারী শিক্ষকদের মধ্যে ব্যাবধান সৃষ্টি করা হয়। আমরা প্রাথমিক সহকারী শিক্ষকরা,প্রধান শিক্ষক ও সহকারী শিক্ষকদের একই বেতন গ্রেডের যৌক্তিক দাবী দ্রুত বাস্তবায়ন চাই । সেই সাথে যৌক্তিকতা ও ন্যায্যতার বিবেচনায় একটি প্রস্তাবনা তৈরী করে পিটি আই সংলগ্ন পরীক্ষণ বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও অন্যান্য দপ্তরের কর্মচারীদের ন্যায় প্রাথমিকের সহকারী শিক্ষকদের ১০ম গ্রেডে বেতন,ন্যায়সঙ্গত দাবীর প্রস্তাবনা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবর উপস্থাপন করার জন্য সিনিয়র সচিব মহোদয়ের সদয় অনুগ্রহ কামনা করছি।

এ বিষয়ে কথা বললে,উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা হাছিনা ভুইয়া জানান, শিক্ষকরা স্বারকলিপি দিয়েছেন,বিষয়টি উর্ধতন কতৃপক্ষকে অবগত করা হবে।

মেহেদী হাসান,ফুলবাড়ী (দিনাজপুর)

নিউজটি শেয়ার করুন


© All rights reserved © seradesh.com
Design, Developed & Hosted BY ALL IT BD